করোনায় আইসিউতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট : স্কেরিট

116

মরণঘাতি করোনাভাইরাসের কারনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট এখন ‘ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে(আইসিইউ)’ বলে মন্তব্য করলেন ক্যারিবিয় ক্রিকেট প্রধান রিকি স্কেরিট। এ কারণে বড় ধরনের আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট। এই আর্থিক সংকট কাটিয়ে উঠতে হলে ব্যয় কমাতে হবে বলে মনে করেন স্কেরিট।
করোনাভাইরসের কারণে বিশ্বে ৪৫ লাখেরও বেশি মানুষ সংক্রমিত হয়েছে। ক্রিকেটসহ বিশ্বের সকল খেলাধুলা বন্ধ হয়ে গেছে।

গার্ডিয়ান মিডিয়া স্পোর্টসকে দেয়া সাক্ষাৎকারে স্কেরিট বলেন, ‘এই সঙ্কট আমাদেরকে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ করে আইসিইউতে পাঠিয়ে দিয়েছে। এটি যেন কোন অসুস্থতা নিয়ে চিকিৎসকের কাছে যাওয়ার মত এবং চিকিৎসক ওষুধ লিখছেন, এরমধ্যে আপনি স্টোক করেছেন।

আগামী জুনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের ইংল্যান্ড সফরও স্থগিত হয়েছে। আগামী জুলাই-আগস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে যাবে দক্ষিণ আফ্রিকা। সফরে পাঁচটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ ও দু’টি টেস্টে রয়েছ তাদের। কিন্তু এ সিরিজটিও শঙ্কার মুখে।

নিউজিল্যান্ড দলের ওয়েষ্ট ইন্ডিজ সফরও হুমকির মুখে। ক্যারিবীয় সফরে তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলার সূচি রয়েছে কিউইদের।

স্কেরিট বলেন, গত ডিসেম্বরে বোর্ডের হিসাব রক্ষন বিভাগ ও আর্থিক পরিচালনার পরামর্শে ৬৩ পৃষ্ঠার একটি প্রতিবেন উপস্থাপন করা হয়। এই কমিটি, ভবিষ্যতের আন্তর্জাতিক সফর, পুননির্ধারন বা স্থগিত হওয়া ইভেন্ট নিয়ে আগামী ২৭ মে বোর্ড সভায় তা উপস্থাপন করবে।

স্কেরিট জানান, ‘এই কমিটি কোভিড-১৯ জরুরি অবস্থা কি সমস্যা সৃস্টি করেছ এবং এখন কি করা যায় তা নিয়ে সুপারিশ করবে। কিভাবে ব্যয় রোধ করা যায়, এসব বিষয় নিয়েও আলোচনা করবে। আমি মনে করি, আমাদের ব্যয় কমানোর সময় এসেছে’।

তিনি আরো বলেন, আমাদের ১০০ ক্রিকেটারের তালিকা রয়েছে। বোর্ডকে পেশাদার লিগের অর্থায়ন করতে হয়েছিলো। এটি আমাদের জন্য বড় ব্যয় ছিলো এবং এ সমস্ত ব্যাপারে নজরদারি করা হবে।