গাজীপুরের শ্রীপুরে বেলতলীতে মেম্বার ও গ্রাম পুলিশের বিরুদ্ধে ভাতার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ।

220

গাজীপুর প্রতিনিধিঃগাজীপুর জেলার শ্রীপুর থানার ১নং মাওনা ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড বেলতলী গ্রামে দিনের পর দিন অনাহারে দিন কাটাচ্ছেন জড়িনা খাতুন মধু (৭০)।
এ সম্পর্কে জড়িনা খাতুন মধুর সাথে কথা বললে তিনি বলেন, আমার স্বামী, মা-বাবা, ভাই-বোন, বসতভিটা কিছুই নেই। মানসিক প্রতিবন্ধী ছেলে ছিলো যাকে কয়েক মাস যাবৎ খুঁজে পাচ্ছিনা। রাস্তার পাশে সরকারি জমিতে চটের বেড়া আর ভাঙ্গা টিনের চাল দিয়ে, মাটিতে শুয়ে কোনো দিন না খেয়ে, কোনো দিন একবেলা খেয়ে কোনো রকমে বেঁচে আছি। কবেযে শেষ ৩ বেলা খেয়েছি তা মনেও পরছেনা।

তিনি আরো বলেন, সরকার করোনায় এতো ত্রাণ দিচ্ছে যার কিছুই আমি পাইনি। সাবেক মেম্বার বয়স্ক ভাতার ১টি কার্ড করে দিয়েছেন। গত ২ বছর দরে বর্তমান মেম্বার আর চইদার (গ্রাম পুলিশ) ভাতার টাকাও দিচ্ছেনা। মেম্বার বলছে সরকার ভাতার টাকা দিয়ে রোহিঙ্গা খাওয়াচ্ছে, তাই ভাতার টাকা দেওয়া যাবে না।

তিনি আরো জানান, বাড়িতে পানি খাওয়ার একটি কলও নাই। মানুষের বাড়ি বাড়ি ঘুরে যা পাই তা খেয়ে দিন কাটাই। এখন করোনার জন্য কারো বাড়িতে যেতে দেয়না। কোনো দিন একটু পানিও আমার কপালে জুটেনা। আল্লাহ্ যদি আমাকে নিয়ে যেতো আমি জানে বাঁচতাম।
সরকারের কাছে আমার একটি দাবি, সরকার যদি আমাকে একটি থাকার ঘর আর পানি খাওয়ার জন্য একটি কলের ব্যবস্থা করে দিতো, শেষ বয়সের কয়টা দিন একটু শান্তিতে বেঁচে যেতাম।
সরেজমিনে দেখা যায়, রাস্তার পাশে সরকারি জমিতে চটের বেড়া আর মরিচা পরা টিনের ছাউনি ঘরে মাটিতে শুয়ে দিন কাটাচ্ছেন বেলতলী গ্রামের মৃত. আব্দুল বাতেনের স্ত্রী জড়িনা খাতুন মধু। এসময় মধুর ভাতার কার্ড নিয়ে দেখা যায় গত ২ বছর ভাতার যে টাকা পায়নি তা স্থানীয় মেম্বার ও গ্রাম পুলিশ নকল টিপসই দিয়ে তুলে নিয়েছে।

এ সম্পর্কে স্থানীয় মেম্বার মোঃ ইউসুফ বলেন, জড়িনা খাতুন মধুর গত ২ বছরের ভাতার টাকা কে তুলে নিয়েছে তা আমি জানিনা। ভাতার কার্ড গ্রাম পুলিশ সারোয়ারের কাছে থাকে। আমি শুধু কার্ডে সই করে দেই।

এ সম্পর্কে চইদার (গ্রাম পুলিশ) সারোয়ার হোসেন বলেন, ইউসুফ মেম্বারের নির্দেশে আমার কাছে ভাতার কার্ড রেখেছি। আর জড়িনা খাতুন মধু সহ ১৫ জনের ভাতার কার্ডে নকল টিপসই দিয়ে টাকা তুলে নিয়েছি।

এ সম্পর্কে ১নং মাওনা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম খোকন বলেন, ৫নং ওয়ার্ড বেলতলী গ্রামের মৃত. আব্দুল বাতেনের স্ত্রী জড়িনা খাতুন মধুর গত ২ বছরের বয়স্ক ভাতার টাকা সহ ১৫ জনের ভাতার টাকা ইউসুফ মেম্বার ও গ্রাম পুলিশ সারোয়ার নকল টিপসই দিয়ে তুলে নিয়েছে বলে সাংবাদিকের মাধ্যমে অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগের প্রেক্ষিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এ সম্পর্কে ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার আলহাজ্ব মোঃ মজিবুর রহমান, শ্রীপুর উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি আলহাজ্ব কবির হোসেন ও মধুর প্রতিবেশীরা বলেন, মধু খুবই অসহায়। তার স্বামী, বসতভিটা কিছুই নেই। তিন বেলা ঠিকমতো খেতেও পারে না। শুনেছি স্থানীয় ও গ্রাম পুলিশ মধুর গত ২ বছরের ভাতার টাকা সহ ১৫ জনের ভাতার টাকা নকল টিপ